বা়ংলার প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল সাহিত্য পত্রিকা
Browsing Tag

ভ্রমণকথা

বনপাহাড়ি

সাধারণত পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে যে-ধরনের আয়োজন থাকে, বনপাহাড়িতে তা নেই। বিশাল ডাইনিং হল, কন্টিনেন্টাল ডিশ, বাথরুমে গিজার, এসব কিচ্ছু নেই। শুধু প্রকৃতির নির্জনতা অটুট অমলিন আছে। আর আছে স্থানীয় মানুষদের খুশিবিশ্বাসী যাপনের ছবি।

ট্রান্স সাইবেরিয়ান ট্রেনে

প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ে ভ্লাদিভস্তক (VLADIVOSTOK) থেকে সাতটি টাইম জোন পেরিয়ে ন’হাজার কিলোমিটারের বেশি ট্রান্স সাইবেরিয়ান রেলপথটি সাত দিনে পৌঁছে যায় মস্কো শহরে।

দু’চাকায় জঙ্গল ও সুবর্ণরেখা

আজন্ম কলকাতায় বড় হওয়া, ফোন না করে আত্মীয়-বন্ধুর বাড়ি না যাওয়া তথাকথিত ‘সভ্য’ মানুষ। অচেনা অজানা এক আদিবাসী পরিবারের কাছ থেকে এই আতিথেয়তা পেয়ে অভিভূত হয়ে বসে রইলাম।

জলবিভাজিকা পথে ইচ্ছেপাড়ি কুমারাকোম

কেরল রাজ্যের প্রায় ৯০০ কিলোমিটার খাঁড়িপথ ঘিরে সে এক অন্য জগৎ। প্রতিদিনের একমাত্র যানবাহন বলতে এই নৌকা। মালয়ালাম ভাষায় এই নৌকাগুলিকে বলা হয় ‘কেট্টুভালম’।

স্বপ্নে বুরহানপুর

উত্তর ও দক্ষিণ ভারতের সেতু হিসেবে বুরহানপুর প্রতিষ্ঠা পেয়েছিল মুঘল যুগে। তাই একে তৎকালীন সময়ে ভারতের রেনেসাঁর কেন্দ্রবিন্দুও বলে থাকেন অনেক পণ্ডিত। আকারে ছোট্ট বুরহানপুর ছিল তৎকালীন সময়ে সারা ভারতে শিল্প ভারসাম্যের প্রতীক।

মাণ্ডু

গায়িকার সঙ্গে সঙ্গে রূপমতী ছিলেন কবি। বাজবাহাদুরের আরও পত্নী থাকলেও রূপমতীর সঙ্গেই ছিল প্রাণের বন্ধন। গানবাজনা কবিতাচর্চা নিয়ে মশগুল ছিলেন তাঁরা। স্বভাবতই জলস্রোতের মতো মুঘল সেনার হাতে ভেঙে পড়ল মাণ্ডুর দুর্গ শহর। বাজবাহাদুর হেরে গিয়ে…

মায়াময় মায়পোখরি

যে অরণ্যে নর-অধমদের যাতায়াত যত কম, সে ততই রম্য। প্রান্তিক গ্রামবাসীরা এ পথে কদাচিৎ যাতায়াত করেন। বাঁশ, ফার্ন, উত্তিশ, দেওদার ইত্যাদির বনানী। পথের ওপর ঝরাপাতা। ঝরার বুকে পাতার ছায়া। পথের ওপর জলধারা। খাদের ওপারে সবুজ গিরিশ্রেণি। তার বুকে…