বা়ংলার প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল সাহিত্য পত্রিকা
Browsing Tag

পড়শি দেশের গল্পকথা

খোং ইজি

মালিকের চেহারা ছিল মারমুখী এবং খদ্দেররা ছিল বেরসিক ও খিটখিটে স্বভাবের। তাই মজা-মশকরা করার কোনও উপায় ছিল না। শুধু খোং ইজি এলে যাহোক একটু হাসতে পারতাম।

বিয়ের নাচ

লুমনের উষ্ণ, নগ্ন বুকের পুরোটাই ওয়িইআওর বুকের মধ্যে কেঁপে ওঠে। লুমনে ওয়িইআওর গলা জড়িয়ে ধরে তার মাথা ওয়িইআওর ডান কাঁধের ওপর রাখে। তার চুল এসে পড়ে গাঢ় অন্ধকার জলপ্রপাতের মতো।

দাম্পত্য

এই পৃথিবীর লক্ষ লক্ষ মানুষের কথা ভাবুন আর ভাবুন তাদের দাম্পত্য সম্পর্কে। এই পৃথিবীর সমস্ত জীবের কথা ভাবুন, যেমন ধরুন মাছ বা পাখি, সঙ্গে তাদের বিয়ের কথাও ভাবুন। গুটিকয়মাত্র অবিবাহিত মানুষের কথা ভেবে লাভ নেই, তারা ভীষণই সংখ্যালঘু।

নাক

একদিন এক শরৎকালে তারই একটা কাজের জন্য তার শিষ্য সন্ন্যাসী গেছিল কিয়োতোতে। কীভাবে লম্বা নাকটাকে ছোট করা যায় তেমন একটা উপায় সে তার জানাশোনা এক বদ্যির কাছ থেকে শিখে এল। সেই বদ্যি জাপানে এসেছে চিন দেশ থেকে।

আমার বন্ধু নেসো

নেসো আর অন্য বন্ধুরা, যারা স্কুলে ভর্তি হতে পারল না, তারা সবাই আমার স্কুলে চলে আসত, ক্লাসের দরজার সামনে ভিড় করে দাঁড়াত, আমাদের দেখতে উঁকি মারত ভেতরে। কিন্তু মাস্টারমশাই তো তাদের ভেতরে ঢুকতে দিতেন না।

সাংগ্রিলার শিখর থেকে

সে মৃদু হাসল। কেমন ভয় পাওয়া চাহনি। উঠে বসতে গিয়ে বাচ্চাদের মতো হাঁটু আঁকড়ে ধরল। আমার চোখের দিকে না তাকিয়েই বলল, আমি আসলে মরতে চেয়েছিলাম। আর তারপর এখানে...।

গাইয়ে রহস্য

বন্ধুদের কাছে ফিরে আসতেই জবর এবার মুখ খুলল। তারপর? কেমন দেখলি তাকে? গলার আওয়াজের মতোই জবরদস্ত খুবসুরত তো? ওয়ালাজান বিলকুল চুপ কিন্তু তার মুখে তখন ফুটে উঠেছে অবাক করা এক দিলখুশ আমেজ।

মানুষের মতো মানুষ

নবাব সাহেবের হাসিও ছিল বেশ মিতব্যয়ী। এবং যখন হাসির প্রয়োজন হত তখন তিনি কৃপণের মতো হাসতেন। অদ্ভুত চরিত্র তাঁর! যেন হাসলেই তাঁর পকেট ফাঁকা হয়ে যাবে।

স্প্রিংয়ের পুতুল

উচ্ছ্বসিত হাসিমুখ নিয়ে কিয়োলু মহম্মদ যখন নৌকা থেকে লাফ দিয়ে তীরে নামলেন, কেউ একজন তাঁকে জানিয়ে দিল আবদুল কাদিরের অভিশাপের কথা। মুখভরা পানের লাল থুতু সামনের একটা কাকের দিকে পিচিক করে ছুড়ে দিয়ে কিয়োলু মহম্মদ ঠাট্টার সুরে হোহো করে হেসে ফেললেন।

অন্ধকারের আলো

মা বলছিল বাড়িতে ভাল জামাটা পরে ফেলতে। কিন্তু বাড়িতে পরে ফেললে মন্দিরে কী পরে যাব? আমাদের পাশের বাড়ির ওরা যখন মন্দিরে ভিক্ষা দিতে যায় তখন আমাকে সঙ্গে নিয়ে যায় ধোয়াধুয়ি করার জন্যে। বাসন ধুতে ধুতে কোমর ব্যথা হয়ে যায়, তবুও মন্দিরে যেতে আমার ভাল…