বা়ংলার প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল সাহিত্য পত্রিকা
Browsing Tag

কবিতা

তৈমুর খানের দুটি কবিতা

প্রসব রোজ মৃত্যু এসে শরীরে ঘুমায় আমি ওর পরিচর্যা করি কলঙ্ক রটে যায় ঘোর সহবাসে অন্ধকারে মৃত্যু ওঠে হেসে ওষুধ পথ্য জলের বোতল সবাই পাহারা দেয় উজ্জ্বল শয্যা ঘিরে বসে থাকে নির্ঘুম সংসার আমার নীরব ভাষা আর নীরব ভাষার সংকেতগুলি বাহু…

অরুণাংশু ভট্টাচার্যের দুটি কবিতা

ট্রিওলেটগুচ্ছ যে-আয়ু বলছে তার গৌরবগাথা জলস্তম্ভে সেনরের ডানহাত টলমল করে, বিচ্ছেদ-জ্বরে যেন পুনর্লিখিত ভূর্জ গাছের পাতা-- এই উপাসনা, এই নাকি তার হাল দেখছে আঁধার, বিচলিত মহাকাল; সেই ইল্যুশন, সেই হাতে ধরা আয়ু ঝরে পড়ে জলে, ওঠে হাওয়া…

এলিজা খাতুনের কবিতাগুচ্ছ

ফেরা মাটি-মায়ের দুধ ছেড়ে যেদিন চলে এসেছি, সেদিন থেকেই আকাঙ্ক্ষা পুষে রেখেছি ভেতরে ফিরে যাব আবার আমার পুরনো মায়ের কোলে যেখানে মেঠোপথে ধুলোর আদরে মার্বেলের সাথে লুটোপুটি খেত বাড়ন্ত স্বপ্নরা, চাতাল-রোদে কুলোর বাতাসে ধান থেকে সরে যেত…

তীর্থঙ্কর মৈত্রর দুটি কবিতা

হলুদ পাতার ফাঁকে সব স্মৃতি সুখ আনে, সব গান আকাশে মিলায়! হলুদ পাতার ফাঁকে, তোমার প্রেমিক খুঁজে যায় আহত ঘুড়ির স্বপ্ন— অঘ্রাণের বিকেলবেলায়! তবুও মাটির পথে গোরু নিয়ে রাখাল বালক তোমাকে বাঁশিতে ডাকে, পাকাধানে রাতে চন্দ্রালোক খেতের সোনায়…

প্রদীপ করের দুটি কবিতা

সুর ছায়াপথ ধরে এসো, এসো স্মৃতিপথে তোমাকে গোপনে রাখি, শুশ্রূষায় ক্ষতে নিদাঘ শূন্যতা দেব ধূ ধূ অবসাদ হরিণের শিঙে বেঁধে পাঠাব বিষাদ অভ্যাসবশত মেঘে পাঠাই যে জল অশ্রু গহীনে নামো শান্ত অতল নেমেছ সমর্পণ? আত্মঅভিমান? শোকের অন্তর্ধ্যানে…

বিভাবসুর দুটি কবিতা

ভুল প্রেম, ফুল প্রেম ভুল জলে ডুবেছে, সন্ধ্যাকথা ভুল স্বপ্নে নিভেছে, আলোর গান ব্যথার স্রোতে মিশেছে, বিষণ্নশরীর আমার ঘুমে তবু, তোমারই উৎসব এই প্রেমিক পথ এই পথিক প্রেম এই পথান্তরের মায়াবী উচাটন এই আলোবিলাসের, বিলোল উদ্ধার তোমার…

রণবীর দত্তর দুটি কবিতা

প্রেমিকার একটি হাত প্রেমিকার একটি হাত যদি কোনওদিন ফিরে আসে সে কি ফুল হয়ে বাতাসের ধাক্কায় লীন হয়ে যাবে? সমস্ত পাখিকুল প্রেমিক হয়ে গোপনে চুমু দিতে জানে পিপাসায় আর্দ্র হয়ে পিপাসার কাছে বসে থাকে? মোহতাপে জর্জরিত পুরনো বাড়ির ভিতর বন্দি জেগে…

শুভ্রনীল সাগরের দুটি কবিতা

অনেক বছর পরে, আজ যে মুহূর্তরা ফিরে আসছে— তাকে ফিরে যেতে বলো… ঠিকানা বদলায়নি কিন্তু প্রাপক এখানে এখন আর থাকে না… সে তো লেখেনি কিছু চেয়ে! তবে কে পাঠাল— এমন অমোঘ হাতছানি? যেন তাকে ফিরে আসতে হতই! এদিকে জানলাজুড়ে আষাঢ়স্য রোমন্থন…

গৌরী মৈত্রের দুটি কবিতা

সন্ধ্যার নীল ফ্রক ঘুরপাক খাচ্ছে অনেকদিন ধরে একটা জরিপ করার ফিতে খুঁজছি… শৈশবে ঘুরে দাঁড়াবার অভ্যাস তেমন ছিল না; কয়েকটা মাটির খেলনা, বিড়ালের পায়ের পাতায় লেগে থাকা আলো আর রাঙামাসিদের বাতাবী বাতাস, মেপে রাখা হয়নি তাই, তার অনেক…

নাহিদা আশরাফীর দুটি কবিতা

এ কবিতা অপাঠ্য বলে গণ্য করা হোক সংসদীয় বিতর্ক— সন্ধ্যায় মালতীরা নিরাপদ নয় তবু সন্ধ্যামালতী নামে ফুল কেন ফোটে? ট্রাক— রাষ্ট্রের গায়ে কারা যেন গায়েবি হরফে লিখে দিয়েছে— ‘একশো হাত দূরে থাকুন।’ সাইনবোর্ড— ইদানীং চোখ বেশ পরিষ্কার…