বাংলায় প্রথম সম্পূর্ণ অনলাইন একটি সাহিত্য পত্রিকা

সুভাষ বিশ্বাসের দুটি কবিতা

কাপালিক

তোমার মৃত্যুযোগ লেখা খামে উড়ে এসেছে চিঠি
রাত্রির কোলাহলে ঘেমে উঠেছে শ্বেতকরবীর পাতা
শ্বেতকরবী কি কোনও ইঙ্গিত বোঝে
মৃত্যুর করতলে নেমে আসা রাতের এষণা!

এইসব দৃশ্যের ভেতর কখন জেগে ওঠে যজ্ঞ আহুতি
কেউ টের পাওয়ার ভয়ে কুঁকড়ে বসে থাকে সে
‘সে’ অর্থে তৃতীয় পুরুষ না কি আমি!
এই প্রশ্নে বিদ্ধ করে এক কাপালিক
যুগপৎ জীবন ও মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে এসে তার অসি কাঁপে
আর ঝনঝন শব্দে খসে পড়ে যজ্ঞবেদিতে।

ভাষা

কে যেন দেখে যাচ্ছে সব, তাকে দেখতে পাই না, শুধু খুব, খুউব মেঘ করলে, বৃষ্টি আসার আগের মুহূর্তে তার চোখদুটো ভেসে ওঠে; সে চোখে রাগ না আবেগ, ঈর্ষা না ভালবাসা কিছুই বোঝা যায় না; তবে এটুকু বুঝি সে খুব সন্তর্পণে ও নির্ভুলভাবে লক্ষ করছে, লক্ষ করছে ময়লা কুয়াশামাখা আলোর ভেতর দিয়ে কীভাবে চোখের মধ্যে গজিয়ে উঠছে রং-বেরঙের ফসিল, নদীর জলে শত শত প্রজাতির শ্যাওলা আর জলজ প্রাণীর শরীর কেমন বদলে যাছে, আমূল বদলে যাচ্ছে ত্রিগুণের ভাষা।

অঙ্কন : দেবাশীষ সাহা

মতামত জানান

Your email address will not be published.