বাংলায় প্রথম সম্পূর্ণ অনলাইন একটি সাহিত্য পত্রিকা

সম্পাদকীয়

শুরু হোক পাঠকের সুখপাঠ

সাহিত্যের সবই সুখপাঠ্য নয়। যে কোনও পাঠকই বলতে পারেন এমন কথা। তবে সে কথা বোধহয় বাইরের। সৃষ্টি যদি অনাসৃষ্টি না হয় তা হলে তার রস মনের ভেতরে চারিয়ে যাওয়া তো একরকমের সুখই। সৃষ্টির ধরন নানারকম হতে পারে কিন্তু শিল্পের গভীরের সত্যটি প্রকৃত পাঠককে নিশ্চয়ই সুখ দেয়। 'সুখপাঠ ' সেই সুখে বিশ্বাসী। চেতনায় অবিশ্বাসকে সে অসুখ বলেই ধরবে।
আরও পড়ুন

প্রবন্ধ

সহজ পাঠ-এর সমাজ

লোকা ধোবাকে বলব ‘তুমি’, আর শক্তি-মুক্তিকে বলব ‘আপনি’! কেন? কেন ধোবাটির সম্পত্তির মধ্যে একখানি গাধা আছে বলেই কি সে ‘তুমি’? এই শিক্ষা শিশুপাঠ্যপুস্তক সহজ পাঠ কেন দেবে একটি মুক্তমনের ছোট্ট শিশুকে?
আরও পড়ুন

বিশেষ রচনা

অনিশ্চয়তার পাদদেশে

জীবনের শেষ অনিশ্চয়তা ছাড়াও যে অন্য অনিশ্চয়তা জীবনে উঁকি দিতে পারে, এমনকি জীবনকে সংশয়াচ্ছন্নও করে তুলতে পারে, সেই অভিজ্ঞতা তো এখন আমাদের হচ্ছে। আমাদের নিশ্চয়তার অভ্যেস তাতে টাল খাচ্ছে। ঠিক আছি, তবু হঠাৎ মনে হচ্ছে, ঠিক আছি তো?
আরও পড়ুন

ধারাবাহিক আত্মকথা

শেষবিকেলে সিমলিপালে পর্ব ১

খাওয়া শেষ করে আমরা যখন বারান্দায় বসলাম তখন চারপাশের কোলাহল অনেকটা স্তিমিত হয়ে এসেছে। নানা লজ ও গেস্টহাউসের বাতিগুলোর জ্যোতি কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন শুক্লপক্ষ, মহীরুহর পাতার ফাঁকফোকর দিয়ে আকাশ দেখা যাচ্ছে। তবে আজ সপ্তমী কি অষ্টমী হবে, চাঁদ…
আরও পড়ুন

শেষবিকেলে সিমলিপালে পর্ব ২

বাঘ আমি দেখেছি ভারতের নানা বনে। শিকারও করেছি। তখনও ঝাড়খণ্ড আলাদা রাজ্য হয়নি। বিহার, ওড়িশার বিভিন্ন জঙ্গল, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, আসাম ইত্যাদি জায়গায় জঙ্গলে বাঘের মুখোমুখি হয়েছি বহুবার। কিন্তু সেসব বাঘ দেখা এবং খৈরিকে দেখা…
আরও পড়ুন

ধারাবাহিক উপন্যাস

মহানিষ্ক্রমণ পর্ব ১

চোখ সরিয়ে নিল চন্দ্রা। দৃশ্যটির দিকে বেশিক্ষণ তাকিয়ে থাকতে পারছে না সে। ভীষণ অস্বস্তি হচ্ছে তার। একরকম অপূর্ণতার জন্য তার ভেতরটা ছটফট করছিল। বুকের ভেতরে একটা পাখিও ডানা ঝটপট করছিল।
আরও পড়ুন

মহানিষ্ক্রমণ পর্ব ২

রাশভারী সে নয়, তবু কেমন একটা অদৃশ্য শুচিতার বলয় যেন তাকে ঘিরে রাখে। তার সামনে তরল রসিকতা করা যায় না। তার কোঁকড়া চুল, চোখ-মুখের লাবণ্যে একরকম প্রতিমার মতো পবিত্র ব্যাপার আছে। একটু দেবী-দেবী ভাব। এরকম মানুষের সঙ্গে আদিরসাত্মক কোনও কথা বলা…
আরও পড়ুন

মহানিষ্ক্রমণ পর্ব ৩

ভেতরে ভেতরে কেঁপে ওঠে অনিকেত। ক্রমাগত এক চিন্তা, অবিশ্বাস্য এই আঘাত, বিশ্বাসের খুঁটি উপড়ে গিয়ে মাথার ওপর অস্তিত্বের ছাউনি কোথায় উড়ে গেল! সত্যিই যদি সে উন্মাদ হয়ে যায়, ছেলে আর ছেলের বউ কি তাকে বাড়িতে রেখে ট্রিটমেন্ট করবে, না কি কোনও…
আরও পড়ুন

মহানিষ্ক্রমণ পর্ব ৪

জীবন আর সহজ সরল নেই। অসম্ভব উচ্চতা থেকে চন্দ্রা ধুলোমাটির নোংরা পৃথিবীতে নেমে এসেছে। চন্দ্রা অক্লেশে মিথ্যে বলেছে, চন্দ্রা অনৈতিক কাজ করে অস্বীকার করেছে। কী আশ্চর্য মানুষের সাইকোলজি।
আরও পড়ুন

রম্যরচনা

বিয়ে

দেখাদেখির মধ্যে মেয়ে দেখাটাই দেখা। ছেলে দেখাদেখি কী! চাকরি করে, দুটো হাত-পা, একটা মাথা, আর কী চাই! দেখার কী আছে! ছেলে অষ্টাবক্র হোক, সামান্য তোতলা হোক, একটু ট্যারা হোক, মাথায় সামান্য টাক হোক, সব মানিয়ে যায়। ময়ূর ছাড়া কার্তিক পাবেন কোথায়!
আরও পড়ুন

গল্প

রমেন পালের দিন-রাত

মেয়ের রূপে বাবার মুগ্ধ হতে নেই। কথায় আছে, ‘মায়ের চোখে মেয়ের রূপ/অনেক ভাল, অনেক সুখ/‌বাপের চোখে মেয়ের রূপ/‌ জ্বলতে থাকা কাঠির ধূপ।’ এর অর্থ হল, ধূপ বেশিক্ষণ থাকে না। সে যতই গন্ধ দিক, একসময়ে পুড়ে যায়, ফুরিয়ে যায়। মেয়ের সৌন্দর্যেও বাবাকে কখনও…
আরও পড়ুন

ভাল-মন্দের মাঝখানে

দিদি বিয়ে করেনি। উজ্জ্বলও নয়। বাবা-মা মারা গেল। তারা দু’জনে পড়ে আছে। গগন শুধু বিয়ে করেছে। ওর এক ছেলে আছে। সে কত বড়, কার কাছে থাকে, কিছুই জানে না উজ্জ্বলরা। কেমন দেখতে হয়েছে সে? গগন না সুরমার মতো?
আরও পড়ুন

হারিয়ে যাওয়া নদীটি

একটা ছোট্ট পাহাড়ি নদী ছিল। স্রোত তেমন নেই। স্বচ্ছ জল। তলায় রঙিন পাথর। গোল গোল। পাথরের ফাঁকে ফাঁকে মাছেরা খেলা করত। পায়ে হেঁটে অনায়াসে পেরোনো যেত সেই নদী। নদীর মাঝবরাবর এক মাঝারি পাথরখণ্ড। বরফের মতো ঠান্ডা জলে পা ডুবিয়ে দিয়ে ওই পাথরে বসে…
আরও পড়ুন

উল্টোপিঠ

আমি চুপ করে সেই কান্নাটাই শুনতে থাকি। জীবনে ঐশীর প্রেম পাইনি, চুমু পাইনি, আলিঙ্গন পাইনি, কিন্তু মনে হয়েছিল, এই কান্নাটার আমি একা মালিক। ও আমার কাছেই শুধু এভাবে কাঁদতে পারে।
আরও পড়ুন

কবিতা

অনিতা অগ্নিহোত্রীর দুটি কবিতা

না-কবিতার ক্যালিগ্রাফি অগাস্ট ১৯৪৭ বাহাত্তর বছর আগে নতুন করে সীমান্ত লেখা হল, মানুষ উদ্বাস্তু হল, ছিন্নমূল। নিজের ঘরবসতের সঙ্গে পোয়াতি বউ আর কাঁধে সন্তান নিয়ে পথ হাঁটল, সীমান্তের ওপারে যে দেশটা আছে, সেটা নিজের মনে করে। বউ-ঝি ধরে…
আরও পড়ুন

সুবোধ সরকারের দুটি কবিতা

আমাকে তোমার করে নিয়ো যদি আমি ভালবেসে থাকি যথাস্থানে যদি এসে থাকি কে গাইছে গান? ভালবাসা সত্যি হলে ঝড় থামে, থামে না তুফান। যদি আমি সত্যি বেঁচে যাই আমি আরও পুড়ে দেখতে চাই কালো নাকি লাল? মদ খেলে সকলেই হয় না মাতাল। কেউ কারো ক্রীতদাস…
আরও পড়ুন

যশোধরা রায়চৌধুরীর দুটি কবিতা

সেলফিঘটিত মৃত্যু এই এক পরিশ্রান্ত উপকূল। নিচু নিচু কথোপকথনগুলি পাথরের মত টপকে যাই ওইখানে পিছল পাথরে কারও সেলফিমৃত্যু ঘটে গিয়েছিল লেখা আছে আলকাতরা অক্ষরে, সফেদ দেওয়ালের গায়ে, গাছে গাছে টাঙানো রয়েছে। লেখা আছে পতনের কথা আমাদের…
আরও পড়ুন

বিভাস রায়চৌধুরীর দুটি কবিতা

বিভূতিভূষণ মেয়েকে আমার পিঠে নিয়ে বাঁওড়ের পাশ দিয়ে হাঁটতাম খেতে পেতাম না জলে ডুবে থাকতাম বর্ষাকালে প্রতিবার পরিচিতদের দেখলে সরে পড়তাম চুপচাপ ওরা জানতে চাইত কী করি? কীভাবে চলে? কিন্তু আমি তো বাঁচতাম অদ্ভুত... বিভূতিভূষণের এক…
আরও পড়ুন

পড়শি দেশের গল্পকথা

অন্নপূর্ণার ভোজ

কারও নিজের বিবেক, মতামত যদি না রইল তা হলে তো তাকে মানুষই বলা চলে না। মেয়েজন্ম কি অবমানব হয়ে থাকা? অমানুষ হওয়া? যেমন পুরুষদের ক্ষেত্রে, তেমনই মেয়েদের ক্ষেত্রেও নানা বৈচিত্র্য থাকে। তবে মেয়েদেরই শুধু কেন বিবাহিত হওয়ার পর আর মানুষ হিসেবে…
আরও পড়ুন

সাক্ষাৎকার

হাউইকে আকাশে উঠতে গেলে অনেকটা বারুদ পোড়াতে হয় : হিরণ মিত্র

তাঁর আঁকা ছবি অনেকদিন আগেই তাঁর ব্যতিক্রমী শিল্পভাবনাকে চিনিয়ে দিয়েছে। দেখিয়েছে শিল্পের নানা মাধ্যমে অনায়াস যাওয়া-আসা। তিনি গানও আঁকেন, হরফও। আবার কার্টুন আঁকার সময়ে ভাবেন না শিল্পী হিসেবে তাঁর জাত গেল কিনা। বইয়ের প্রচ্ছদে তুলির সামান্য…
আরও পড়ুন

ভ্রমণ

মায়াময় মায়পোখরি

যে অরণ্যে নর-অধমদের যাতায়াত যত কম, সে ততই রম্য। প্রান্তিক গ্রামবাসীরা এ পথে কদাচিৎ যাতায়াত করেন। বাঁশ, ফার্ন, উত্তিশ, দেওদার ইত্যাদির বনানী। পথের ওপর ঝরাপাতা। ঝরার বুকে পাতার ছায়া। পথের ওপর জলধারা। খাদের ওপারে সবুজ গিরিশ্রেণি। তার বুকে…
আরও পড়ুন

ঝরা পাতার ইতিকথা

ভ্রমণের লেখা পড়লে মানসভ্রমণ হয়। তেমনই কোনও বেড়ানোর জায়গায় না গিয়েও তাকে একেবারে চোখের সামনে দেখতে পাওয়া কম আনন্দের নয় নিশ্চয়ই। আর আগে দেখা থাকলেও অন্য চোখে দেখার ভাললাগাই বা কম কী। এই বিভাগে আপনারা দেখতে পাবেন নানা ভ্রমণ এবং ভ্রমণকে বিষয়…
আরও পড়ুন

কালো মানুষ সাদা কথা পর্ব ১

ঠিক করলাম আফ্রিকা যাব। প্রায় হঠাৎই। বেড়াতে যাওয়া নয়। একটা অস্পষ্ট ধারণা নিয়ে বুনো কল্পরাজ্যে ভবঘুরেমি করা। ইউরোপের দশগুণ বড় বেওয়ারিশ এই মহাদেশটাকে ইউরোপীয় যুদ্ধবাজরা লুটেপুটে খাওয়ার পর তারা কী অবস্থায় আছে সেটা জানবার নিরন্তর তাড়না মনের…
আরও পড়ুন

কালো মানুষ সাদা কথা পর্ব ২

আলজেসিরাস ও জিব্রলটার আর ওপারে সিউটার মধ্যেকার খাঁড়ির কাছে এই ক্যাম্প সাইট। বিনোদনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা এখানে। আছে বার-রেস্তোরাঁ, সন্ধেবেলায় সঙ্গ দেওয়ার জন্য সুন্দরী নারী। আমাদের দু’রাতের ডেরা এখানে। নম্বর দেওয়া তাঁবু বণ্টন হল। পছন্দমতো…
আরও পড়ুন

কালো মানুষ সাদা কথা পর্ব ৩

এক অ্যারাবিক মুর পরিবার কুশকুশ তৈরি করে খাওয়াল। ওদের জাতীয় খাবার। ভাপে সেদ্ধ সুজি দানা, তার ওপর বাষ্পে স্নান করানো মুরগির মাংস, গাজর, পেঁপে, আলু, অলিভ মেশানো ঝোল। একই প্লেটে চারজনের খাবার সাজিয়ে টেবিলে দিতেই হাপুস হুপুস।
আরও পড়ুন

কালো মানুষ সাদা কথা পর্ব ৪

অতিথিসেবা বা বিজনেস ডিল, সবই হয় চায়ের কাপে। দিনে চার কাপ চা পান। আমার কপালে জুটল তিন। প্রত্যেক কাপের সঙ্কেত, দর্শন আলাদা। প্রথম কাপ জীবনের মতো তেতো। দ্বিতীয় কাপ ভালবাসার মতো মিষ্টি। তৃতীয়টি শীতল, মৃত্যুর মতো।
আরও পড়ুন

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মানুষ ভ্যাকসিন বানাবে, ভাইরাস বদলাবে তার চরিত্র

ডারউইনের যোগ্যতমের উদ্বর্তনের তত্ত্ব দিয়ে মানুষ উপলব্ধি করেছে, শুধু লিভার, কিডনি, ফুসফুস থেকে উৎসারিত প্রাণশক্তি দিয়ে এ শত্রুকে চেকমেট করা যাবে না। আঙুলটা একটু বাঁকাতেই হবে। কাঁটা দিয়েই কাঁটা তুলতে হবে। অনেকটা বিষে বিষে বিষক্ষয়ের মতো।
আরও পড়ুন

প্রযুক্তি, তক্কো, গপ্পো পর্ব ১

অমলকান্তি আসলে কী চায়। তার শ্রেষ্ঠ কাজের জায়গাটি ঠিক কী। এই সমস্যার সমাধানে মানুষের বুদ্ধি হার মানলেও সমাধান নিয়ে হাজির আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। পরবর্তী প্রজন্মের অমলকান্তির হাতে রাখির মতো পরিয়ে দেওয়া হবে একটি…
আরও পড়ুন

প্রযুক্তি, তক্কো, গপ্পো পর্ব ২

পৃথিবীর সব ক’টা ডেটা সেন্টারের দখল করা মোট জমির পরিমাণ ছ’হাজার ফুটবল মাঠের সমান। গুগল প্রায় দু’দশক আগেই জেনে গিয়েছিল ডেটা যার, মুলুক তার। এই সবেধন নীলমণি ডেটাকে সুরক্ষিত রাখতে ডেটা সেন্টারগুলোতে নিরাপত্তার জন্য লেজার থেকে বায়োমেট্রিক, কোনও…
আরও পড়ুন

প্রযুক্তি, তক্কো, গপ্পো পর্ব ৩

মানুষের চাহিদা যেহেতু বিচিত্র, বহুমুখী, উদ্ভট এবং অনিশ্চিত তাই কোন মানুষ কোন অ্যাপের প্রতি আকৃষ্ট হবেন তা খতিয়ে দেখার জন্য দরকার বিগ ডেটা এবং মেশিন লার্নিং-এর সাহায্যে তার চুলচেরা বিশ্লেষণ।
আরও পড়ুন

প্রযুক্তি, তক্কো, গপ্পো পর্ব ৪

ভারতে নাগরিকপঞ্জির প্রতিবাদে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে এই যুগের যে সকল সাহসমানসেরা সামিল হয়েছিলেন তাদের প্রত্যেকের চেহারা স্ক্যান করেছিল এই যুগের গুপ্তচর চক্রায়ুধ। ভাল নাম ‘অটোমেটেড ফেসিয়াল রেকগনিশন সিস্টেম’। ডাকনাম এএফআরএস। এর ক্ষমতা নেহাত…
আরও পড়ুন

পরিবেশ

বার্ড লাইফ

এই বিভাগে আপনারা দেখতে পাবেন পরিবেশকে বিষয় করে নির্মিত ছোট ছবি বা শর্টফিল্ম। আমাদের চারপাশের পরিবেশকে আরও নিবিড় করে চেনা ও জানার এবং পরিবেশের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার লক্ষ্যেই এই ভাবনা। এবারের ছবি "বার্ড লাইফ"। পরিচালক : ঐন্দ্রিলা সরকার।
আরও পড়ুন

প্রকৃতি থাকে বাকি

ভারতের সমস্ত নদী আমাদের সম্পদ হলে, গঙ্গা আমাদের সম্বল। প্রতি দশজন ভারতীয়র মধ্যে প্রতি চারজন ভারতীয় গঙ্গার জল ব্যবহার করেন। ষোলোটি রাজ্যের ও চারটি দেশের নিকাশি ব্যবস্থা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে গঙ্গার সঙ্গে যুক্ত। এই দেশ গঙ্গার দান। প্রকৃত…
আরও পড়ুন

বাংলাদেশের হৃদয় হতে

মুক্তোর রঙে রং

স্কুলে ফাইনাল স্পোর্টসের দিন প্রথম-দ্বিতীয়-তৃতীয়কে একটা তিন ধাপের চৌকিতে দাঁড় করানো হত। তাতে দাঁড়ালেই বোঝা যেত কার অবস্থান কী। মুখে বলে দেখিয়ে দিতে হত না। আজ মজিদের মনে হচ্ছে সেরকম একটা চৌকির ওপর দাঁড়িয়েছে তারা। কোনও বিচার-বিবেচনা ছাড়াই বলা…
আরও পড়ুন

পিয়াস মজিদের দুটি কবিতা

ফুলগন্ধ অন্ধকার কল্পনার আল্পনায় সাজিয়েছি তোমাকে যে আমি তোমার আদরের অন্তর্জন্তু। প্রতিশ্রুত সমুদ্র দেখাতে দ্বিধা যাকে, নভো-কুৎসিতে সে তো ছিল তোমার মাটিমধুর অববাহিকা। কতটা উদার-উদাস হলে তুমি পাবে তার আত্মার আওয়াজ, জানা নেই…
আরও পড়ুন

ব্লগ

প্রতিপ্রস্তাব পর্ব ১

কী অলৌকিক সমাপতন যে, দেবেশ রায়ের জন্ম ১৯৩৬ সালে আর সেই ’৩৬ সালেই মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ প্রকাশিত হয়। দেবেশ রায়ের সমস্ত জীবন ছিল পুতুলনাচের ইতিকথার বিপরীতে মানিকবাবুকে যদি কোথাও খুঁজে পাওয়া যায় সেই সন্ধান।
আরও পড়ুন

প্রতিপ্রস্তাব পর্ব ২

জর্জ ফ্লয়েড অতশত জানতেন না। তিনি জানতেন না করোনা ও চর্মকুষ্ঠের চাইতেও, খনিমজুরদের চাইতেও আতঙ্কের হল তাঁর চামড়ার রং। এই সেই সাংকেতিক প্যালেট যা মানুষকে স্বর্গাভিযানের গান শোনায়। এই সেই শরীর যা লম্বা লাফ দেয়, পোলভল্টে ছিটকে পড়ে আর দৌড়োয়।
আরও পড়ুন

চলচ্চিত্র

হাইড অ্যান্ড সিক

"সুখপাঠ"-এর চলচ্চিত্র বিভাগে সিনেমা নিয়ে সুচিন্তিত প্রবন্ধ ও মতামতের পাশাপাশি আপনারা দেখতে পাবেন ছোট কাহিনিচিত্র এবং তথ্যচিত্র। এখানে যেসব শর্টফিল্ম বা ডকুমেন্টারি ফিল্ম দেখা যাবে তা সচরাচর অন্যত্র দেখার সুযোগ কম। এবারের ছবি "হাইড অ্যান্ড…
আরও পড়ুন

সিনেমা মানুষকে পাল্টাতে পারেনি

তিনি একজন স্বপ্নদর্শী। তাই প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের বাইরে বেরিয়ে ভেবেছিলেন, সিনেমা মানুষের মঙ্গলও করবে। গ্রিফিথ লিখেছিলেন, সিনেমার এমন একটা আন্তর্জাতিক গ্রহণযোগ্যতা আছে যে এই সিনেমার মাধ্যমে পৃথিবীর মানুষ একদিন একে অপরকে চিনতে পারবে। ভাল করে…
আরও পড়ুন

সঙ্গীত

গীতিকারদের ভুলে যাওয়াই যখন রেওয়াজ

বাংলা গানের গীতিকারদের অবস্থা অন্ধকারে পড়ে থাকার মতো। গান লিখে তাঁরা হয়তো দুটো পয়সা পান। খেটে খাওয়া শ্রমিকদের তুলনায় হয়তো একটু বেশিই পান। কিন্তু আলোটা তাঁদের ওপর পড়ে না কখনওই। বাংলা গানের জগতে সবচেয়ে অবহেলিত জায়গাটি গীতিকারদের। তারপরে আসেন…
আরও পড়ুন

নাটক

শম্ভু মিত্র : থিয়েটারে স্বতন্ত্র ব্যক্তিত্ব

এক সন্ধেয় তিনি এলাহাবাদের রাস্তা ধরে হাঁটছিলেন, এমন সময় তাঁর কানে এল, রাস্তার ধারের কোনও এক বাড়িতে শিশিরকুমার ভাদুড়ির নাটকের রেকর্ড বাজছে। দাঁড়িয়ে পড়লেন। তন্ময় হয়ে শুনতে লাগলেন সে নাটক। যাকে বলে একেবারে বিমুগ্ধ হলেন। মনস্থির করলেন, আর হেথা…
আরও পড়ুন

ফিরে পড়া

দৈবেন দেয়ম্

ইংরেজিতে যাহাকে সুপারস্টিশন বলে, বাংলায় তাহারই নামান্তর করা হয় ‘‘কুসংস্কার’’। ঐ জিনিসটার প্রতি কটাক্ষপাত নিবারণের জন্য একশ্রেণীর লোকে একটা বড় গোছের জুজু পুষিয়া থাকেন, তাহার মন্ত্র “দেয়ার ইজ এ সুপারস্টিশন ইন এ্যভয়ডিং সুপারস্টিশন’’ অর্থাৎ…
আরও পড়ুন

গল্পপাঠ

চকাচকী

বাংলা ভাষার বিশিষ্ট লেখকদের লেখা গল্পের পাঠ থাকবে এখানে। প্রতি সপ্তাহের শনিবার। পাঠ করবেন প্রখ্যাত অভিনেতা ও বাচিক শিল্পীরা। তাঁদের মুখোমুখি বসে দেখুন ও শুনুন। এই সপ্তাহে সতীনাথ ভাদুড়ীর গল্প "চকাচকী "। পাঠ করেছেন মনোজ মিত্র।
আরও পড়ুন

যাকে ঘুষ দিতে হয়

বাংলা ভাষার বিশিষ্ট লেখকদের লেখা গল্পের পাঠ থাকবে এখানে। প্রতি সপ্তাহের শনিবার। পাঠ করবেন প্রখ্যাত অভিনেতা ও বাচিক শিল্পীরা। তাঁদের মুখোমুখি বসে দেখুন ও শুনুন। এই সপ্তাহে মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প "যাকে ঘুষ দিতে হয়"। পাঠ করেছেন দেবেশ…
আরও পড়ুন

অশ্বত্থের ডালে

বাংলা ভাষার বিশিষ্ট লেখকদের লেখা গল্পের পাঠ থাকবে এখানে। প্রতি সপ্তাহের শনিবার। পাঠ করবেন প্রখ্যাত অভিনেতা ও বাচিক শিল্পীরা। তাঁদের মুখোমুখি বসে দেখুন ও শুনুন। এই সপ্তাহে জীবনানন্দ দাশের গল্প "অশ্বত্থের ডালে "। পাঠ করেছেন সৌম্যদেব বসু।
আরও পড়ুন

নৃপেনদের বাড়ি

বাংলা ভাষার বিশিষ্ট লেখকদের লেখা গল্পের পাঠ থাকবে এখানে। পাঠ করবেন প্রখ্যাত অভিনেতা ও বাচিক শিল্পীরা। তাঁদের মুখোমুখি বসে দেখুন ও শুনুন। এই সপ্তাহে শ্যামল গঙ্গোপাধ্যায়ের গল্প "নৃপেনদের বাড়ি"। পাঠ করেছেন দেবশংকর হালদার।
আরও পড়ুন

বইপত্র

মোমেনশাহী উপাখ্যান; বিহঙ্গ বীক্ষণে

তাঁরা মনে করতেন, ‘হাতি ধরে হাতির পায়ে শিকল পরালে পাহাড়ের কষ্ট হয়। গারো পাহাড়ের চোখের পানি থেকেই সিঙসাঙ নদীর জন্ম।’ আর তাঁদের বিশ্বাসে গারো পাহাড়ও আসলে এক বুড়ো হাতি। বার্ধক্যের ভারে সে নিশ্চল হয়ে গিয়েছে।
আরও পড়ুন

বুনো স্ট্রবেরি কিন্তু ‘বুনো’ নয়

বিভিন্ন পর্বে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে তৎকালীন সমাজচিত্র, রোজনামচা। যতটা না এলিট তার থেকে অনেক বেশি সাধারণ মধ্যবিত্ত বাঙালির। বাদ যায়নি ফেরিওয়ালা, রাস্তার খাবার ও তার আনুপূর্বিক অ্যানাটমিক্যাল বিচার-বিশ্লেষণ আর খাওয়ার আফটার শক-এর মুচমুচে বিবরণ।
আরও পড়ুন